আগামী ২৬ এপ্রিল বাজারে আসছে স্যামসাং এর নতুন ভাঁজ করা ফোন (Galaxy Fold), দেখে নিন কি কি চমক থাকছে ফোনটিতে

আগামী ২৬ এপ্রিল বাজারে আসছে স্যামসাং এর নতুন ভাঁজ করা ফোন (Galaxy Fold)

Posted in Other.

আসসালামু আলাইকুম
আশাকরি সবাই ভালো আছেন
সবাই ভালো থাকেন ভালো রাখেন এই প্রত্যাশাই করি সব সময়।

ফাইনালি স্যামসাং রিলিজ করতে যাচ্ছে তাদের নতুন ফোল্ডেবল ফোনগ্যালাক্সি ফোল্ড

সবাইকে অনুরোধ করব নিচে থাকা ভিডিও টি দেখার জন্য। তাহলে আপনি সম্পূর্ণ ধারণা পাবেন ফোনটি সম্পর্কে।

2018 তে যেমন নোচের ট্রেন্ড ছিল 2019 এ কিন্তু তার ব্যতিক্রম হতে চলেছে!

অনেকের ধারণা ছিল না যে 2019 এ ফোল্ডিং ফোন এর দেখা মিলবে!! যেটাকে আমরা ভাঁজ করে ব্যবহার করতে পারব!! কি বিশ্বাস হচ্ছে না?

তো আজ আমি আপনাদের সাথে কথা বলতে যাচ্ছি গ্যালাক্সি ফোল্ড এর ব্যাপারে। আর কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক।

প্রথমেই এই ফোন সম্পর্কে জানিয়ে দেই

যদি আপনি ফোনটিকে ফ্রন্ট সাইট থেকে দেখেন যখন ফোন টি ফোল্ড করা থাকবে তখন আপনারা দেখতে পারবেন ৪.৬ ইঞ্চির ডিসপ্লে।

কিন্তু মজার ব্যাপার হচ্ছে যখন আপনি ফোনটি ফোল্ড থেকে বড় করবেন তখন দেখতে পাবেন ৭.৩ ইঞ্চির এক বিশাল ডিসপ্লে।

যা ফোনটিকে সম্পূর্ণ ট্যাবলেট বানিয়ে দেবে!

সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে ২০১৯ এ এসে স্যামসাং তাদের কোন একটি ফোনে নোচ নিয়ে এসেছে!

যখন সম্পূর্ণ স্মার্টফোন জগৎ নাচের পিছনে ছোট ছিল তখন স্যামসাং তাদের কোন ফোনেই নোচ দিচ্ছিল না।

তো ২০১৯ এসে তাদের ফল্ডিং ফোনে আপনি নোচের দেখা পাবেন। নোচটি দেখতে একটু অন্য রকম।

আপনারা স্যামসাং ফোল্ডেবল ফোনটি যখন ফোল্ড থেকে খুলবেন তখন ডান পাশের উপরে দেখতে পাবেন একটি নাচ এবং নাচে থাকবে ক্যামেরা সেন্সর।

খন ফোল্ড থাকা অবস্থায় আপনি ফোনটিকে দেখবেন তখন মনে হতে পারে ফোনটি আরেকটু বড় হলে কিন্তু মন্দ হত না।

কিন্তু যখন ফোল্ড থেকে আনফোল্ড করবেন তখন দেখতে পাবেন এক বিশাল ডিসপ্লে।

এখন কথা বলা যাক ডিজাইন সম্পর্কে

তো বলতে পারেন ফোনটি কিভাবে ফোল্ড হয়?

ফোনটি ফোল্ড করার জন্য আপনি মাঝখানে দেখতে পাবেন হিন্স, মানে ফোল্ডিং মেকানিজম এর দেখা মিলবে।

স্যামসাং বলছে তারা প্রায় হাজার বার টেস্ট করার পর এটি নিয়ে আসছে। তাই আশা করা যায় খুব বেশি ফোল্ড আনফোল্ড করলে ফোনটিতে তেমন কোনো সমস্যা হবে না।

হয়ত মনে এই প্রশ্ন টি জেগেছে যে ব্যাটারি তো ফল্ট করা যাবে না? ব্যাটারি কিভাবে থাকবে?

উত্তর:

স্যামসং বলছে তারা দুপাশে দুটি ব্যাটারি দিয়েছে যা ফোল্ড আনফোল্ড করার সময় ব্যাটারীতে কোন প্রভাব পড়বে না।

দুটি ব্যাটারিকে এক করলে৪৩৮০ এমএএইচএর ব্যাটারি পাওয়া যাবে। যখন আপনি ফোনটি ফোল্ড অবস্থায় হাতে ধরবেন তখন মনে হবে দুটো ফোন একসাথে হাত ধরে আছেন।

এখন কথা বলি কালার কম্বিনেশন নিয়ে

ফোনটির মিলছে তিনটি কালারের ভার্সন।

  • Green
  • Blue
  • Black

সবুজ, নীল এবং কালো রঙের তিনটি ভার্সন এ পাওয়া যাবে ফোনটি। ব্যাক সাইট দেখতে সাইনি গ্লাসের মত লাগবে!

এখন কথা বলা যাক ফোনটি পারফরম্যান্স নিয়ে

ফোনটিতে থাকতে সেভেন ন্যানোমিটারের প্রসেসর যা আপনাকে সুপার এফিশিয়েন্ট পারফরম্যান্স দিতে সাহায্য করবে সাথে থাকছে ১২ জিবি র্যাম এবং ৫১২ জিবি এর ইউএফএস ৩.০ স্টরেজ অপশন!

আপনাদের মধ্যে অনেকেই হয়তো বলতে পারেন ইউএসএস ৩.০ কোন ধরনের স্টোরেজ অপশন?

তো সোজা কথায় বলতে গেলে এটি খুবই ফাস্ট স্টরেজ যা আপনার অ্যাপস এবং গেমস খুব জলদি লোড করবে।

স্যামসাং তাদের ইউ আই এর সাথে আরও একটি অসাধারণ ফিচার অ্যাড করেছে যার নাম হচ্ছেথ্রি অ্যাপ মাল্টিটাস্কিং

এর মানে আপনি তিনটি অ্যাপ একসাথে এক স্ক্রিনে ব্যবহার করতে পারবেন!!

খুবই অসাধারণ লাগছে তাইনা?

স্যামসাংয়ের ইভেন্টে তারা এক সাইটে ইউটিউব, অন্য সাইটে হোয়াটসঅ্যাপ এবং গুগল ওপেন করে তারা দেখিয়েছে।

সফটওয়্যার এর ভিতরে আরও একটি ফিচার অ্যাড করেছে, অ্যাপ কানেক্টিভিটি নামের।

যার কাজ হচ্ছে আপনি যখন ছোট স্ক্রিনে কোনো কিছু ব্যবহার করে ফোনটি আনফোল্ড করে বড় স্ক্রিন করবেন তখন অটোমেটিক আপনার ছোট স্ক্রিনে থাকা সবকিছু বড়স্ক্রিনে বড় ভাবে দেখাবে যা খুবই অসাধারণ!!

যেমন আপনি গুগল ম্যাপ ছোট স্ক্রিনে ব্যবহার করছেন, এখন আপনি ফোনটি আনফোল্ড করে বড় স্ক্রিন করলেন তখন গুগল ম্যাপ ম্যাপ অটোমেটিক বড় স্ক্রিনে বড় ভাবে দেখাবে!!

Galaxy Fold

এখন কথা বলা যাক ফোনটির ক্যামেরা সম্পর্কে

ফোনটিতে দেখতে পাবেন আপনি ৬ টি বিশেষ ক্যামেরা। ৩ ক্যামেরা ব্যাক সাইডে, দুটো ইনসাইট ক্যামেরা এবং একটি ফ্রন্ট ক্যামেরা থাকবে।

এখন কথা বলা যাক ফোনটির প্রাইস ও রিলিজিং ডেট সম্পর্কে

ফোনটির প্রাইস শুনে আপনারা হয়তো একটু বিস্মিত হতে হয়ে যেতে পারেন। কারণ ফোনটির দাম আমেরিকান ডলারে ১৯৮০ US$ এবং যা বাংলা টাকায় কনভার্ট করলে হয় ১৬২,০০০ টাকার মতো এবং রিলিসিং ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে এপ্রিল ২৬ তারিখ।

Galaxy Fold Specifications Highlight

Performance
Octa core (2.84 GHz, Single Core + 2.42 GHz, Tri core + 1.8 GHz, Quad core)
Snapdragon 855
12 GB RAM
Display
7.3 inches (18.54 cm)
15362152 px, 362 PPI
OLED
Camera
12 MP + 12 MP + 16 MP Triple Primary Cameras
LED Flash
10 MP + 8 MP Dual Front Cameras
Battery
4380 mAh
Fast Charging
USB Type-C port
Expected Price:Rs. 140,790
Release Date:26-April-2019 (Expected)
Variant:12 GB RAM / 512 GB internal storage
Phone Status:Upcoming Phone
কষ্টের ফেরিওয়া Articles